January 30, 2023, 4:30 am

#
ব্রেকিং নিউজঃ
এলাকার প্রভাবশালীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ অসহায় একটি পরিবার।লাকসামে ৭টি বিদ্যালয়ে ইংরেজি ভার্সন উদ্বোধন এবং ইমামদের সাথে বৈঠক করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী।কুমিল্লায় এমপি সীমার শীতবস্ত্র বিতরণ ও আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন বিষয়ক আলোচনা সভা।সাতকানিয়া সরকারি কলেজের ব্যাচ’৯৯ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত।কুমিল্লায় আর্তমানবতার সেবায় নেয়ামতউল্লাহ ফাউন্ডেশনের আত্ব প্রকাশ।ক্ষতবিক্ষত মরদেহে নির্যাতনের ছাপ স্পষ্ট! মামলা না নিয়ে উল্টো হুমকি।সাবেক এমপি জয়নাল আবেদীন ভূঁইয়ার ১৮তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত।সার্ক জার্নালিস্ট ফোরাম বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের সভা অনুষ্ঠিত।বরুড়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক সাংসদ অধ্যাপক নুরুল ইসলাম মিলন’র উদ্যোগে প্রতিবন্ধীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ।তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্র করে ৭ তম শ্রেণীর ছাত্র মাহীন কে পিটিয়ে আহত করল কারা ?

মানবতার তরে মানবপ্রেমী সংগঠনের উদ্যোগে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা।

মানবতার তরে মানবপ্রেমী সংগঠনের উদ্যোগে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা।
রবিউল হোসাইন সবুজ, লাকসাম প্রতিনিধিঃ
লাকসাম হাউজিং এষ্টেট জামে মসজিদের সামনে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে এক বিশাল র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত র‌্যালী ও আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাংগঠনিক সম্পাদক ও লাকসাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম ( হিরা),উপস্থিত ছিলেন লাকসাম উপজেলা ছাএলীগের সাবেক সভাপতি ও সম্পাদক, প্রকাশক নকশিবার্তা মোঃ দলিলুর রহমান মানিক আরো ছিলেন সাংবাদিক শাহীন আলম, উপদেষ্টা সদস্য সাংবাদিক মোঃ রবিউল হোসাইন (সবুজ), রঞ্জু সহ অনেক এ। উক্ত সংগঠনের সভাপতি মোঃ মিজান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আরিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শিহাব আরো যারা ছিলেন মোঃ জয়, রনি,সুজন, রাশেদ,জান্নাত, নিলয়,মহিন,প্রমি,সুমি সহ সংগঠনের সকল সদস্য বিন্দু উপস্থিত ছিলেন। এ র‍্যালি ও আলোচনা সভার উদ্দেশ্য ছিল। জনসাধারণকে রক্তদানে উৎসাহকরণ এবং রক্তদাতাদের সম্মান তুলেদরা। আর ১৮৬৮ সনের এই দিনে অষ্ট্রিয়ার ভিয়েনা নগরীতে জন্ম গ্রহন করেন চিকিৎসা বিজ্ঞানের উজ্জল নক্ষত্র ব্লাড ব্যাংকের জনক কার্ল ল্যান্ড ষ্টেইনার। তিনি ১৯০০-০১ সনে ব্লাড এর ABO গ্রুপিং আবিস্কার করে স্বারনীয় হয়ে আছেন, তিনি তার আবিস্কারে জানান রক্তের RBC এর গায়ে A ও B নামে ২ টি এন্টিজেন থাকে, যদি A এন্টিজেন থাকে তবে A গ্রুপ, B এন্টিজেন থাকলে B গ্রুপ, A ও B উভয় এন্টিজেন থাকলে AB গ্রুপ এবং A ও B এন্টিজেন না থাকলে O গ্রুপ। এ জীবন রক্ষার আবিস্কারের কারনে তিনি ১৯৩০ সনে নবেল পুরস্কার পান। তিনি ব্লাড ব্যাংকের পুর্নতা আনতে ১৯৪০ সনে ব্লাড ব্যাংকের Rh গ্রুপিং আবিস্কার করেন, এতে তিনি রেসাস মানকির সেরাম ব্যবহার করেন অর্থাৎ তিনি তার আবিস্কারে জানান RBC এর গায়ে D এন্টিজেন থাকলে Rh D Positive (+ve) এবং D এন্টিজেন না থাকলে Rh D Negative (- ve)। পরবর্তিতে Rh E,C,e,c আবিস্কার হয় যা Rh factor নামে পরিচিত। এই আবিস্কারে কার্ল ল্যান্ড ষ্টেইনারকে সাহায্য করেন এলেক্স উইনার,ফিলিপ্স লেভেন ও আরই ষ্টেটসন নামের ৩ জন বিজ্ঞানি। তার এই আবিস্কারে চিকিৎসা বিজ্ঞানে রক্ত শুন্যতা, রক্ত রোগ, ট্রমা/ এক্সিডেন্ট, সার্জারি, গাইনী সহ সকল পর্যায়ে রক্ত স্বল্পতার চিকিৎসা যুক্ত হয় জীবন বাচানোর নব দিগন্ত। কার্ল ল্যান্ড ষ্টেইনার জীবন রক্ষায় রক্তের গ্রুপ আবিস্কারে মাঝে কোথাও তার নাম যুক্ত করেন নাই। যেমন বৈজ্ঞানিক কেল তার আবিস্কৃত রক্তের গ্রুপের নাম দেন কেল গ্রুপ। অনুরুপ ভাবে ডাফি গ্রুপ, লুইস গ্রুপ ইত্যাদি। তাই ইতিহাসের পাতার তার এই আবিস্কার কে চির স্বারনিয় করে রাখতে ২০০৫ সনে লন্ডনে এক আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সেমিনারে রক্ত বিজ্ঞানি গন কার্ল ল্যান্ড স্টেইনর কে স্বারনিয় করে রাখতে তার জন্মদিন কে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতি রুপে গ্রহন করেন। এর পর ২০০৬ সনে বিশ্বে প্রথম বারের মতন দঃ আফ্রিকার জোহানসবার্গ শহরে ১৪ ই জুন কে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস হিসাবে পালন করা হয় যথাযথ মর্যাদার সহিত। এতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রক্ত পরিসন্চলনের কর্মকর্তাগন যোগদান করেন। এবং এই জোহানসবার্গ সম্মেলনে দিবসটি যথাযথ মর্যাদার সহিত পালনের জন্য পৃথিবীর সকল দেশকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়ে দেন।
এর ধারাবাহিকতায় বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় ২০০৭ সনে বাংলাদেশেও ১৪ই জুনকে আন্তর্জাতিক রক্তদাতা দিবস হিসাবে যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্বির্যের মাধ্যমে পালন করা হয়। সেবারে দিবসটির প্রতিপাদ্য ছিল ” জীবন রক্ষায় আমিই দিব নিরাপদ রক্ত।( Safe Blood Start with me)
ব্লাড ব্যাংকের জনক কার্ল লেন্ড ষ্টেইনর ১৯৪৩ সনে ২৬ শে জুন চলে যান না ফেরার দেশে, কিন্তু রেখে যান তার অমর আবিস্কার যা জীবন বাচানোর মহাঔষধ হিসাবে ব্যবহার হবে চিরকাল।
তাই প্রতি বছর ১৪ ই জুন বিশ্ব রক্তদাতা দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালন করে বৈজ্ঞানিক কার্ল লেন্ড স্টেইনরকে স্বরন করা হয়।
রক্তের অভাবে ১৮ কোটি মানুষের এই বাংলাদেশে মানুষ মারা যায়। আমরা ইচ্ছা করলেই এই অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু এড়িয়ে যেতে পারি রক্ত দানের মাধ্যমে।
সংগঠনের সভাপতি বলেন- আমরা চাইলেই পারি রক্ত দিয়ে একজন মুমূর্ষ রোগীর জীবন বাঁচাতে।
“অন্যের জীবন বাঁচাতে স্বেচ্ছায় নিজেদের রক্তদান করা সহ আমরা সবাই নিজ দায়িত্বে রক্ত সংগ্রহ ও সরবরাহের কাজে সর্বদা নিজেকে নিয়োজিত রাখিব। এই প্রতিশ্রুতি প্রতিভাসিত হোক সোনার বাংলাদেশের ধর্ম-বর্ণ-দল নির্বিশেষে সকল মানুষের হৃদয়ে। সংগঠনের এর পক্ষ থেকে সকল রক্ত দাতা ও স্বেচ্ছাসেবীদের প্রতি বিনম্র শ্রোদ্ধা ও ভালোবাসা অবিরাম। মানবতার তরে মানবপ্রেমই সংগঠন জয়ধনী হচ্ছে –

রক্তের অভাবে ঝরবে না আর
কোনো প্রান,
আমরা হাজার ও তরুন, তরুনি,করবো সেচ্চায়
রক্ত দান!!!
আর মানবতা লুকিয়ে থাকে রক্ত দানের মাঝে।
আসুন সবাই এগিয়ে আসি,এমন সৎ কাজে।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১