September 24, 2021, 5:54 am

#

২০ বছর পার হলেও মেয়ে মধুমালাকে ফিরে পায়নি মহেশপুরের দুঃখী খাতুন।

মিজানুর রহমান, বিবিসি বার্তা, ঝিনাইদহ (জেলা) প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলা ৭নং কাজিরবেড় ইউনিয়নে কচুয়ারপোতা গ্রামের ইউনুচ আলী শেখ ও তার স্ত্রী দুঃখী খাতুন দীর্ঘ ২০বছর ধরে অপেক্ষায় আছে তাদের মেয়ে মধুমালা কোন একদিন হয়তো আবারো ফিরবে তাদের বাড়িতে। মেয়ে মধুমালাকে ফিরে পাবার আশায় দীর্ঘদিন ধরে থানা ও কোর্টে ছুটে বেড়াচ্ছেন অসহায় পরিবারটি। মহেশপুর থানার মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায় ২৫/০৫/২০০০ সালে উপজেলার একই ইউনিয়নের ভগোবতি তলা গ্রামের মকবুল হোসেন ও তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম ইউনুস আলী শেখ ও তার স্ত্রীর দুঃখী খাতুন কে আর্থিক প্রলোভন ও চাকরি দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন কলা কৌশলে তাদের মেয়ে মধুমালা কে ভারতে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে দীর্ঘদিন ধরে তাদের কন্যা মধুমালার সাথে যোগাযোগ করতে না পারায় মকবুল ও নুরজাহানের কাছে মেয়ের সন্ধান জানতে চাইলে তারা বিভিন্ন কলাকৌশল উল্টাপাল্টা কথা বলে তাদের মেয়েকে ফিরিয়ে দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন সময় হাতিয়ে নিয়েছে কয়েক লক্ষ টাকা। মহেশপুর থানার মাধ্যমে ২০১৭ সালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ঝিনাইদা আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং -১৮/২০১৭। আসামিরা জামিনে বাড়িতে এসে তাদেরকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য বিভিন্ন রকম ভয়-ভীতি দেখানোর অভিযোগ তুলে দুংখী খাতুন বলেন এর আগে আমার দুইটি মেয়ে মারা গেছে,মেয়ে মধুমালাকে ফিরে পাবো এই আশা নিয়ে বেঁচে আছি।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০