January 18, 2021, 2:26 pm

#
ব্রেকিং নিউজঃ
গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে প্রার্থীদের জরিমানা।সিরাজগঞ্জ ৫ উপজেলায় পৌর নির্বাচন সম্পন্ন।পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা সহায়তা পেলেন কুবি শিক্ষক।বেলকুচি পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সাজ্জাদুল হক রেজা নির্বাচিত।সিরাজগঞ্জ জেলায় পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় বিজয়ী কাউন্সিলর তারিকুল ইসলাম (৪৫) নিহত।কুমিল্লায় মাতৃভূমি ফাউন্ডেশনের উদ্ধোগে মেহমান আপ্যায়ন।পায়ে হেটে ১৫০ কি.মি.পথ পাড়ি দিলেন কিশোর কুমার।আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, নিহত ১ বিদ্রোহী প্রার্থী কাদেরসহ গ্রেফতার ২৬গৌরীপুরে এলজিএসপি’র প্রকল্পে লুটপাটের মহোৎসব, নেই তদারকি সংশ্লিষ্ঠদের।চৌদ্দগ্রামে স্কুল ছাত্রী ছয় মাসের অন্তঃসত্তা, ধর্ষক গ্রেফতার।

লাকসামে চাঁদা না দেওয়ায় ৭০ বছরের বৃদ্ধা মেরে আহত করলেন ইউপি মেম্বার জামাল।

লাকসামে চাঁদা না দেওয়ায় ৭০ বছরের বৃদ্ধা মেরে আহত করলেন ইউপি মেম্বার জামাল।

কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানাধীন ৩ নং কান্দিরপাড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড বর্তমান মেম্বার জামাল হোসেন ১৬ই মে বৃহস্পতিবার দুপুর অনুমান ১২ ঘটিকার সময় মৃত মনসুর আলীর ছেলে মফিজুর রহমান ওরফে হাজী মেন্ডা কে চাঁদা না দেওয়ার অভিযোগে মেরে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এই প্রতিবেদক হাসপাতালে গেলে গুরুতর আহত অবস্থায় দেখে তার সাথে কথা বলার এক পর্যায়ে জানতে পারা যায় যে, কান্দিরপাড় ইউনিয়নের বর্তমান ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার জামাল হোসেন নাকি তার ছেলেদের বানানো একটি বিল্ডিংয়ের কাজ শুরু করলে জামাল মেম্বার, তার ভাই কামাল হোসেন, কাবঝাপ ফারুকের ভাই মোশারফ কে বিল্ডিংয়ের কাজের যত মালামাল আছে তা সব কিছুই তাদের পছন্দের প্রতিনিধি থেকে বিল্ডিংয়ের মালামাল ক্রয় করতে হবে।

তাতে বৃদ্ধা মফিজুর রহমান কান্না জনিত কন্ঠে বলেন, বাবারে আমি তাদের কাছ থেকে বিল্ডিংয়ের মালামাল না নেওয়াতে আমার কাছে ১৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করেন, আমি তাদের চাপে এই পর্যন্ত ৬৫০০ টাকা দিয়েছি, আমি টাকা না দিলে আমাকে এই করবে সেই করবে বলে হুমকি প্রদান করেন। পরে আমি নিরুপায় হয়ে তাদের কে ৬৫০০ টাকা দিলেও আরো ১ হাজার টাকা দাবী করেন আমার কাছে জামাল মেম্বারের ভাই কামাল।

পরবর্তী ১ হাজার টাকা সন্ধ্যায় দেওয়ার কথা থাকলেও দুপুরে মেম্বার সহ কামাল, ফারুক, মোশারফ মিলে আমাকে এলোপাতাড়ি মাইরধর করে আমাকে গুরুতর আহত করলে স্থানীয় লোকজন আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আমাকে অনেক ভাবেই শান্তিতে থাকতে দিচ্ছেনা এই জামাল মেম্বার তার ভাই কামাল, কাবঝাপ ফারুক ও তার ভাই মোশারফের অত্যাচারে আমাদের বেঁচে থাকাই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। আমি কোন মামলাও করতে পারছিনা তাদের ভয়ে।

এই দিকে রমজানের কয়েকদিন আগেও এই মোশারফ স্থানীয় নৈরবাজারের এক নিরীহ দোকানদারকে অন্যের টাকার কারনে রিপন নামে এক ব্যক্তিকে মেরে গুরুতর আহত করেন, পরে স্থানীয় মেম্বার আবুল খায়ের শালিসের মাধ্যমে রিপনের কাছে ক্ষমা চাইয়ে শালিস করে দেন।

মেম্বার জামাল,তার ভাই কামাল, কাবঝাপ ফারুকের ভাই মোশারফের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।

এই ব্যাপারে অভিযুক্ত মেম্বার জামাল কে তার ব্যবহারিত মুঠোফোনে আলাপকালে জামাল বলেন, আপনি কে? সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পরেও তিনি বলেন, আমি কেনো আপনাকে বলতে যাবো? অভিযোগকারী মেন্ডাকে বলেন থানায় মামলা করতে তার পরে দেখা যাবে। এই বৃদ্ধাকে মারার কথা স্বীকার করে মেম্বার জামাল জানান, এলাকাভিত্তিক কারনে আমরা এই বৃদ্ধাকে মেরেছি, এখন যা হবার থানায় হবে। মেম্বারের কথায় এমনই বুঝা গেলো যে, থানা মনে হয় মেম্বারের খরিদকরা সম্পত্তি।

৩নং কান্দিরপাড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য যাওয়ায় তার সাথে কোন ভাবেই যোগাযোগ করতে না পারায় তার পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জানান, এব্যাপারে কিছু কোন্দলতা আছে, তবে আমি এখন কিছুই বলতে পারছিনা আমাদের চেয়ারম্যান সাহেব না আশা পর্যন্ত।

লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, কে এম সাইফুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে, অনিবার্য কারন বশত তাকে পাওয়া যায়নাই।

 

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১