December 1, 2022, 6:53 am

#
ব্রেকিং নিউজঃ
সমবায় পদক পেলেন লাকসাম প্রেসক্লাবের সভাপতি- তাবারক উল্ল্যাহ কায়েস।আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেল অটিজম আক্রান্ত বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু।কুমিল্লা বড়জলা সীমান্ত থেকে ২মাদক কারবারি গ্রেপ্তার; মাদক উদ্ধার।আত্মাহত্যা, বাল্যবিবাহ ও মানব পাচার প্রতিরোধ বিষয়ক মত বিনিময় সভা।কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউএসএ অভিষেক অনুষ্ঠিত।ধর্মপুরের মাদক সম্রাজী সাফিয়া গ্রেপ্তার ; জেল জরিমানা।ঝিনাইদহ মহেশপুরে ১১ কেজি সোনা উদ্ধার।হাজী আবদুল সাত্তার ফাউন্ডেশন কর্তৃক বৃত্তি পরিক্ষা।কুমিল্লায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড।এসএসসি দাখিল ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের আ. হাকিমের শুভেচ্ছা।

বুড়িচংয়ে স্কুলের জমি বেদখল! পাঠদান চলছে টিনের ছাপড়ায়!!

মাহফুজ বাবু;

কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার খাড়াতাইয়া পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি বেদখল হওয়ায় নির্মাণ করা যাচ্ছে না নতুন ভবন। আর তাই শ্রেনিকক্ষের সংকটে টিন ও বেড়ার ছাপরা তুলে চলছে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদান। অপরদিকে বিদ্যালয়ের জমিতে গাছ লাগিয়ে বেড়া দিয়ে দখল করে রেখেছে একটি পক্ষ!
সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জমি স্থানীয় জনৈক ব্যক্তি অবৈধভাবে দখল ও আদালতে মামলা করে রাখায় বরাদ্দকৃত নতুন ভবন নির্মাণ করাও সম্ভব হচ্ছে না। জমি দখলের প্রতিবাদে ইউএনও’র কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েও সুরাহা পাচ্ছে না বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
প্রধান শিক্ষক নাসরিন আক্তারের অভিযোগ, বিদ্যালয়ের নামে এক জায়গায় ১২, আরেক জায়গায় ৬ শতক জমি আছে। বিদ্যালয়ের জমি জোরপূর্বক দখল করে বেড়া দিয়ে গাছ লাগিয়ে দখলে নেওয়া হয়েছে। অথচ দখলকৃত সই জমির ওপর বিদ্যালয়ের একটি পাকা ঘরসহ দুই কক্ষের একটি পাকা ভবন ছিল।
নতুন ভবন করার জন্য পুরোনো ভবন ভাঙার পর বিদ্যালয়ের জায়গা দখলে নেয় মাহফুজুর রহমান নামে জনৈক ব্যক্তি। ভবনের পাশেই নতুন ভবন নির্মাণের জায়গা আছে। কিন্তু যেখানে নতুন ভবন করা সম্ভব, সেখানে খাড়াতাইয়া গ্রামের মাহফুজুর রহমান অবৈধ ভাবে দখল করে টিনের বেড়া দিয়ে গাছ লাগিয়ে ঘিরে রেখেছেন। এতেকরে প্রতিষ্ঠানটি শ্রেণীকক্ষ সংকটে রয়েছে। নতুন ভবন নির্মাণও সম্ভব হচ্ছে না।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পুরাতন ভবনের জায়গায় গাছ লাগিয়ে টিন দিয়ে বেড়া দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে বিদ্যালয়ের জমির একাংশ। আর অস্থায়ী ভাবে অন্যের জায়গায় টিনের চালায় বসিয়ে কোন রকমে পাঠক্রম চলছে শিক্ষার্থীদের।
টিনের চালায় বেড়া দেওয়া ঘরে বসে ক্লাস করা শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী লিপি আক্তার বলে, একচালা টিনের নিচে বসে লেখাপড়া করতে কষ্ট হয়। অনেক গরম লাগে ও ভয়ও হয়।
প্রধান শিক্ষক নাসরিন আক্তার বেগম বলেন, ‘বিদ্যালয়ের ১৮ শতক জমি অবৈধভাবে দখল করে রাখায় জায়গার সংকটে নতুন ভবন নির্মাণ করা যাচ্ছে না। কক্ষ সংকটে শিশু ও প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিনের বেড়া দিয়ে ঘেরা চালায় ক্লাস করাতে হচ্ছে। বিষয়টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউএনও ও শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।’

বুড়িচং উপজেলা প্রকৌশলী আলিফ আহাম্মেদ অক্ষর বলেন, ওই বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য অনুমোদন হয়েছে। নতুন ভবন নির্মাণের জন্য পুরাতন ভবন ভাঙার পর একটি পক্ষ মাহফুজুর রহমানের নিজের জায়গা বলে দখল করে নিয়েছেন এবং আদালতে মামলা করেছেন। বিদ্যালয়ের জায়গায় গাছ লাগিয়ে টিন দিয়ে বেড়া দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে।
এদিকে বিদ্যালয়ের জমি ঘিরে রাখা মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘আমার জমিতে আমি বেড়া দিয়ে রেখেছি । আপনাদের সমস্যা কী? ঘর তুলতে চাইলে আমার জমির দাম দিয়ে দিক।’
উপজেলা সদর থেকে ২ কিলোমিটার দক্ষিণে খাড়াতাইয়া পূর্বপাড়া গ্রামের এ বিদ্যালয়টি অবস্থিত। ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে ১১২জন শিক্ষার্থী আছে। ১২ শতাংশ জমির ওপর নির্মিত একটি পুরাতন ভবনের তিনটি কক্ষ ছিল তখন। ভবনটি নতুন করে নির্মাণের জন্য পুরাতন ভবন ভাঙার পর সে জমি অন্যের দখলে চলে যায়।
প্রয়োজনের তুলনায় শ্রেণি কক্ষের তীব্র সংকট হওয়ায় শিশু ও প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আপাতত অন্যের জমিতে বিদ্যালয় টিনের চালা তুলে পাঠদান করাতে হচ্ছে।
উপজেলা প্রকৌশল দপ্তর থেকে জানা যায়, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বর্তমান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মডেল একটি নতুন ভবন নির্মাণের বরাদ্দ দেওয়া হয়। তবে জমি জটিলতায় তা নির্মাণ সম্ভব হচ্ছে না।
বুড়িচং উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রওশন আরা বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। গ্রামের লোকদের নিয়ে বিষয়টি সমাধানের জন্য বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিকে জানিয়েছি।’

বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা হালিমা খাতুন বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখ জনক। এই বিদ্যালয়টি ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত। একটি পক্ষ মাদ্রাসা আরেক পক্ষ স্কুল দুই পক্ষের একটি পক্ষ নিজেদের জায়গা দাবি করে আদালতে মামলা করেছে। বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সহকারে দেখা হবে এবং নতুন ভবন নির্মাণ শীঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১