January 16, 2022, 9:59 pm

#
ব্রেকিং নিউজঃ
নাসিরনগরে নব নির্বাচিত ইউপি সদস্যদের শপথ গ্রহণ.লাকসাম থানায় ১ বছরে ৭৯ টি, নিষ্পত্তি ৬০টি মামলা।কুমিল্লায় সাংবাদিক সাকিবের উপর অতর্কিত হামলা। রক্তাক্ত অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরন ।নাসিরনগরে স্বপ্নের যাত্রা মানব কল্যাণ সংগঠনের শীতবস্ত্র বিতরণ.লাকসামে শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে রিসোর্স ইন্টিগ্রেশন সেন্টার (রিক) এর উদ্যোগে মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও  খাবার বিতরণ অনুষ্ঠিত।আধুনিকতার আরেক নাম মমতাময়ী হাসপাতাল।বন্য ও প্রাণী রক্ষার দাবিতে মানববন্ধনসাভারে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালনঅ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিকের মৃত্যুতে জাতীয় মানবাধিকার সমিতির শোকদেবীদ্বারে উপজেলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক আতিকুর রহমান বাশার’র ৫৯ তম জন্ম বার্ষিকী পালন

কুমিল্লায় পরিবহন চাঁদাবাজির নতুন কৌশল (পর্ব-১)

এম এ কাদের অপুঃ কুমিল্লা জেলার প্রতিটি উপজেলার মাইক্রো গাড়ি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মাসে ২৫০০ টাকা করে চাদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতি মাসে ২৫০০ টাকা করে জেলার বিভিন্ন গাড়ির ড্রাইভারদেরকে ০০৫……………০০০২ এই ভাবে ভিজিটিং কার্ডের উপর নাম্বার লিখে দিয়ে ১ মাসের জন্য এই টাকা নিচ্ছে হাইওয়ে পুলিশ। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দেখা যায়, বরুড়া উপজেলা থেকে একটি মাইক্রো নিয়ে কুমিল্লা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড় এলাকায় গেলেই সামনে দাড়িয়ে থাকা ট্রাফিক পুলিশের সাইফুল সাংবাদিককে বহন করা মাইক্রো গাড়িটি সিগন্যাল দিয়ে দাড় করায়, ড্রাইভার ভিজিটিং কার্ডটি হাতে নিয়ে দেখানো মাত্রই গাড়িটি ছেড়ে দিলো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ড্রাইভার জানান, গত ২/৩ বছর থেকে এই নিয়মেই আমরা গাড়ি চালাচ্ছি, প্রতি মাসে ২৫০০ টাকা দিয়ে এই কার্ড নিতে হয়, তা না হলে এই গাড়ি গুলোকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় ডিউটি দিয়ে দেয়। হাইওয়ে পুলিশের চাদাবাজির এমন কৌশলকে ধিক্কার জানান সুশীল সমাজ। এমন চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে সরকার ও সরকারের উর্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়। পুদুয়ার বাজার বিশ্বরোড় এলাকায় দায়িত্বে থাকা সার্জেন্ট নোমান তার ব্যবহারিত মুঠোফোনে জানান, এই বিষয়টা আমি শুনেছি যে ঢাকা থেকে মাইক্রোবাস সমিতির লোকেরা এই কাজটা করতেছে, আমরা এসব কাজের সাথে জড়িত নই। যদিও অভিযোগ আসছে সার্জেন্ট নোমান, সাইফুল সহ অন্যান্য ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে, তার পরেও অস্বীকার করছেন ট্রাফিক পুলিশের এই কর্মকর্তা নোমান। সার্জেন্ট নোমানের কথা যদি সত্যি হয়ে থাকে তাহলে সার্জেন্ট সাইফুল এই ভিজিটিং কার্ডের পিছনে দেখা নাম্বার গুলো দেখে ছেড়ে দিলো কেনো? আর এসব চাদাবাজদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ না করে কায়দা করে ফায়দা হাছিল করছে কেনো? নতুন কৌশলের এই চাদাবাজির পিছনে কোন অপশক্তি কাজ করছে তা খতিয়ে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সহযোগিতা কামনা করছেন জেলায় কর্মরত সকল মাইক্রো চালকরা।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১