December 8, 2022, 10:06 pm

#
ব্রেকিং নিউজঃ
পূবাইল থানা আওয়ামী লীগের শান্তি মিছিল অনুষ্ঠিত।রেলওয়ের নতুন মহাপরিচালক কামরুল আহসান।আনন্দ টেলিভিশনের প্রতিনিধির উপর হামলা ও রশি দিয়ে বেঁধে রাখার হুমকি।১২ঘন্টার ব্যবধানে তিতাসে আবারো খুন//গলা ও হাতের রগ কেটে হত্যা করে বৃদ্ধাকে।কুমিল্লার বিদায়ী ডিসির সঙ্গে সাংবাদিকদের মতবিনিময়।চৌদ্দগ্রামে উপজেলা জামায়াতের আমিরসহ গ্রেপ্তার ২০ব্রাহ্মণপাড়া সীমান্তে মাদকের ডেরায় টাস্কফোর্সের সাড়াশি অভিযান! গাঁজা ফেন্সিডিল বিয়ার উদ্ধার, আটক ১, পলাতক ১)চাঁপাইনবাবগঞ্জ সাবেক এমপি ও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের বাসভবনে হামলা।ঝিনাইদহ মহেশপুরে ৬ হাজার কৃষককে দেওয়া হলো সরকারের বিনা মুল্যের সার ও বীজ।ঝিনাইদহ মহেশপুরে ককটেল ও পেট্রোল বোমা উদ্ধার।

” একাদশে শিক্ষার্থী ভর্তিতে রীতিমতো নির্বাচনী প্রচারণা “

” একাদশে শিক্ষার্থী ভর্তিতে রীতিমতো নির্বাচনী প্রচারণা “……

মোঃ মনজুরুল হাসান, ডিমলা থেকে :

শিক্ষার্থী ভর্তিতে রীতিমতো নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার “নন এমপিওভুক্ত” কলেজগুলো. জানা যায় যে, ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেনীতে শিক্ষার্থী ভর্তিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন স্থানীয় নন এমপিওভুক্ত কলেজগুলো. তারা শিক্ষার্থীদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নিজেদের কলেজের স্বপক্ষের নানান ধরনের প্রতিশ্রুতি ও যাবতীয় ভাল দিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছে তুলে ধরে ভর্তি করাতে চাচ্ছেন. প্রতিশ্রুতিগুলোর মধ্যে রয়েছে, গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে ফ্রী’তে বই, উপবৃত্তি, ভর্তি ফ্রি ও কলেজের যাবতীয় খরচ ফ্রি সহ নানান ধরনের সুযোগ সুবিধা. এরকম সুযোগ সুবিধা নিয়ে স্থানীয় কলেজ গুলোর নিজেস্ব লোকবল স্টাফ ও শুভাকাংখী ব্যক্তিদের নিয়ে হাজির হচ্ছে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নিকট. কলেজগুলোর এমন প্রতিযোগিতার কারন খুজতে গিয়ে জানা যায় যে, ডিমলা উপজেলায় প্রায় ১০ টি উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের কলেজ ও ৩/৪ টি বিএম (বিজনেজ ম্যানেজমেন্ট) কলেজ ননএমপিওভুক্ত রয়েছে। মাধ্যমিক পর্যায়ের কলেজগুলেতে বিজ্ঞান, ব্যবসা ও মানবিক শাখায় প্রতিটিতে ১৫০ টি করে আসন সংখ্যা রয়েছে। যার বিজ্ঞান ও ব্যবসা শাখায় শিক্ষার্থী ভর্তির হার খুবই কম। অনেক কলেজে মানবিক শাখার আসন সংখ্যাও পূরণ হয়না। অপরদিকে বিএম কলেজের প্রতিটি ট্রেডের আসন সংখ্যা ৫০ জন করে। কলেজগুলোর নির্ভরশীল সূত্র জানিয়েছেন যে, এমনিতেই এমপিও নাই আর শিক্ষার্থী না থাকলে কলেজ কিভাবে এমপিও’র আশা করবে ? কলেজগুলোর এরকম দৌরাত্ম্য দেখে অনেক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক বলছেন যে, তারা ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিবেন এবং পরে জানাবেন. লক্ষ্য করা গেছে যে, প্রতিটি ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীর কাছে সংশ্লিষ্ট কলেজের অধ্যক্ষ, প্রভাষক, অফিস স্টাফ সহ অনেককে বারবার যেতে হচ্ছে. এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কলেজের এক অধ্যক্ষ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জানান যে, তারা নিরুপায় হয়ে শিক্ষার্থীদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন. তিনি আরও জানান যে, আমাদের কলেজেগুলো প্রায় ১০/১২ বছর ধরে ননএমপিও। সামনে এমপিওভুক্ত হওয়ার সুযোগ রয়েছে তাই শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে হবে। এ বিষয়ে স্থানীয় এক মহিলা কলেজে শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনিও নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন যে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী খুজেঁ তাদের বাড়িতে গিয়ে ধর্না দেওয়া এতে আমাদের সম্মানের অনেক ঘাটতি হয় কিন্তু নিরুপায় হয়ে এগুলো কাজ করতে হচ্ছে। স্থানীয় আরেক বিএম কলেজের অধ্যক্ষ জানান এমপিভুক্ত হইলে আর এ সকল সমস্যা থাকবে না বলে তিনি মনে করেন। এ প্রতিবেদকের সাথে কয়েকজন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীর কথা হইলে তারা বলেন, যেখানে ভালো সুযোগ সুবিধা পাওয়া যাবে ও পড়াশোনার মান ভালো, সেখানেই বুঝে শুনেই ভর্তি হব।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১