August 13, 2020, 2:21 am

#
ব্রেকিং নিউজঃ
মনোহরগঞ্জ আমতলী গ্রামের শাশুড়ী মিথ্যা অভিযোগ লাকসামে শাশুড়ীর মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ জানালেন ভুক্তভোগী জামাতা।লাকসামে র‍্যাবের অভিযানে ভুয়া ডাক্তার কে মোবাইল কোটে সাজা ও ১টি প্রতিষ্ঠান সীলগালা.মাহবুব কবির মিলনকে ওএসডি করা আর সৎ কর্মকর্তাদের ’অশনি সংকেত’ দেখানো এককথা.লাকসামে কিশোরী মেয়ে কে ধর্ষনের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ করায় পরিবারের উপর হামলা.টেকনাফে সাংবাদিক মোস্তাফার চোখে মরিচের গুঁড়া দিয়ে নির্যাতন করেন ওসি প্রদীপ কুমার দাস!!পটুয়াখালীতে শ্রীশ্রী হরি-গুরুচাঁদ মন্দিরে মাসিক শান্তি সেবা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত.শিবগঞ্জে উপজেলা পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক জিয়াউল হকনাসিরনগরে হতদরিদ্রের মাঝে রিং স্লাব বিতরণপটুয়াখালীতে পান চাষীরা হতাশায় দিন কাটাচ্ছে।নানান অপকর্মের দায়ে দৈনিক মানবধিকার ক্রাইম বার্তা থেকে প্রতিনিধি বরখাস্ত।।

“গ্রামীণফোন নাম্বার দিয়ে কোকাকোলার লোটারীর নামে প্রতারনার ফাঁদ”

“গ্রামীণফোন নাম্বার দিয়ে কোকাকোলার লোটারীর নামে প্রতারনার ফাঁদ” —————————————————- মোঃ মনজুরুল হাসান, নীলফামারী (ডিমলা) থেকেঃ
বিবিসি বার্তা২৪ এর ডিমলা উপজেলা প্রতিনিধির ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস আসে। প্রতিদিনের মতোই সাত-সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি মোবাইল ফোনে সময় দেখলেন। এসময় চোখে পড়লো মোবাইলের উপর দিকে ম্যাসেজ আইকনটি। ম্যাসেজ অপশনে ঢুকে আনরিড ম্যাসেজটি ‘CONGRATS!Your Mobile No. has Won £500,000.00Pounds from COCA-COLA Uk lottery prize 2019.To claim send your name,mobile no.&age Via Email:cokdraw1@hotmail.com’ পড়লেন। মেসেজটি গত ৩০ মে তারিখে এসেছে গ্রামীণফোন অপারেটরের ০১৩০৯২৮৭৮১৩ এই নাম্বার থেকে। তিনি নিমিষেই বুঝে ফেললেন এটা কোনো ব্যক্তি বা চক্রের প্রতারণার ফাঁদ। যা একটি প্রতারক চক্রের প্রতারণার সু ফাঁদ বলে মনে হয়।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, এবারই প্রথম নয় কোকাকোলা কোম্পানির নামে এভাবে আগেও কয়েকবার একটি চক্র প্রতারণার ফাঁদ পেতে সহজ-সরল মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য নিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে বড় অঙ্কের টাকা-পয়সা। মানুষকে ফেলেছে চরম হয়রানির মধ্যে। বিবিসি বার্তা২৪ এর প্রতিনিধি সচেতন নাগরিক বলেই গতকালের বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। অন্য কেউ হলে হয়তো প্রতারকের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে ম্যাসেজে আসা নির্দেশমতো দিয়ে দিতেন ব্যক্তিগত সকল তথ্য। পরবর্তীতে হয়রানি, ভোগান্তি আর অর্থ হারানোর মতো অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্ম দিতেন নিজের ভুলের কারনে।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, লটারিতে কোকাকোলা কোম্পানি থেকে বিভিন্ন অংকের পাউন্ড জেতার এসএমএস অনেকেই মোবাইলে প্রায়ই পেয়ে থাকেন। এসব এসএমএস বা ই-মেইলে গ্রাহকের নাম, বাবা-মায়ের নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর ও জন্ম তারিখ চাওয়া হয়। টাকার লোভে অনেকেই ফিরতি এসএমএস পাঠান। ভয়াবহ সত্য হলো যে, এসব তথ্য দিয়ে যে কেউ চাইলে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খালি করে দিতে পারে।
এ ধরনের এসএমএস সম্পর্কে সাইবার বিশেষজ্ঞের মত, এটি সম্পূর্ণভাবে মিথ্যা ও প্রহসনমূলক এসএমএস। এ ধরনের তথ্য এসএমএস ও ই-মেইলের মাধ্যমে দিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে কিছু ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয়া হয়। সেসব তথ্য নিয়ে প্রতারকরা নানা ধরনের ব্যবসায় করে। অনেক সময় গ্রাহককে ব্ল্যাকমেইল করে তার কাছ থেকে অর্থও হাতিয়ে নেয়। এ বিষয়ে কোনো সমাধান পাওয়া যাচ্ছে না। তখন ‘গ্রামীনফোন অপারেটর ব্যবহার করে যখন কেউ ক্রাইম করবে তখন কেন গ্রামীনফোন কোম্পানি কেন অপরাধীর বিরুদ্ধে কোনো আইনি পদপে গ্রহণ করবে না’ এমন প্রশ্নের জবাব কে দিবে ?
এদিকে, কোমল পানীয় কোম্পানি কোকাকোলার কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধি কিংবা ঊর্ধ্বতন কারো সাথে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করতে চাইলে তাদের কণ্টাক্ট লাইন সারাণই ব্যস্ত দেখায়। সচেতন মহল মনে করেন- যেহেতু কোকাকোলার নামে এ প্রতারণার জাল বিস্তার করা হয় তখন কোকাকোলা কোম্পানির উচিৎ আইনি পদপে নেয়া। সচেতন মহল প্রশ্ন তুলেন- কোকাকোলা বা গ্রামীনফোন কোম্পানি নিরব ভুমিকা কেউ আশা করে না।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১