July 10, 2020, 12:07 pm

#
ব্রেকিং নিউজঃ
তুরাগে কৃষকলীগ নেতার উপর হামলা।পেকুয়ার ইয়াবা পাচারকারী ডাকাত মনিয়ার সহযোগী মিতু ইয়াবাসহ বাঁশখালী থানা পুলিশের হাতে আটক.চাঁদাবাজরি অভিযোগে আনন্দ টিভি থেকে এনাম-সোহাগ এবং মিরাজ শিকদার বহিস্কার.পরশের জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিবন্ধীদের খাবার ও কাপড় দিলো দক্ষিণ যুবলীগ।নাঙ্গলকোট উপজেলা আওয়ামী-যুব লীগের সহ-সভাপতির উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজনলাকসামে স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া।তুরাগে যুবলীগ নেতার ছেলের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক। লাকসামে মৎস খামারে বিষ প্রয়োগ, ক্ষতির পরিমান প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা।নিজের প্রতিভা কে কাজে লাগিয়ে সৎ ভাবে থেকেও মানুষের হৃদয় জয় করা যায়ঃ এ্যাড, তানজিনা আক্তার।আপনাদের দুলাল ও “আলোর দিশারী”

ক্লীন ইমেজের ছাত্রলীগ নেতা- শফিকুল ইসলাম

ক্লীন ইমেজের ছাত্রলীগ নেতা- শফিকুল ইসলাম

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমাঃ

চলমান শুদ্ধি অভিযানে নিজের স্বার্থ হাসিলে ভিন্ন মতাদর্শের নেতায় আওয়ামীলীগে যখন সয়লাব, যখন আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশ করে দলের বিশাল ক্ষতির দিকে টানতে মরিয়া, ঠিক এই সময়ে চিরাচরিত স্বভাবের জানান দিয়ে দলের আদর্শিক মনোভাবে অনড় হয়ে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারণ ও বহন করে, জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্থা অর্জন করে, ছাত্রলীগের নিবেদিত প্রাণ হয়ে, অসীম মেধা আর পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলছেন ঢাকা মহানগর উত্তর তুরাগ থানা ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি, সর্বজন স্বীকৃত, কর্মীবান্ধব খ্যাত নেতা শফিকুল ইসলাম শফিক।

দিনরাত বিরামহীন ভাবে দলের স্বচ্ছতায় কাজ করে যাচ্ছেন এই নেতা । খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তৃণমূল থেকে শুরু করে সকল শ্রেণির নেতাকর্মীরা সার্বক্ষণিক ভিড় করছেন প্রিয় এই নেতার সান্নিধ্য পাওয়ার জন্য । বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা তৃণমূল নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়তই বিভিন্ন সহযোগিতার জন্য ভিড় জমান । কেবল দলের প্রকৃত আর ত্যাগি নেতাকর্মীদের নিয়েই সারাক্ষণ নানান কাজে ব্যস্ত থাকেন এই সফল তুরাগ থানা ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি, শফিকুল ইসলাম শফিক। তিনি বলেন, সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক আর ত্যাগি এবং খাটি আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের জন্য আমার দরজা সব সময় খোলা থাকে । দলের ভেতরে অনুপ্রবেশকারীদের বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রলীগের আদর্শের কান্ডারী শফিকুল ইসলাম শফিক প্রতিবেদককে বলেন, আমার কাছে কোন অনুপ্রবেশকারী এবং অযোগ্যদের কোন স্থান নেই । সে আমার যত বড়ই স্বজনই হোকনা কেন । আমি স্পষ্টই বলতে পারি বঙ্গবন্ধুর আওয়ামীলীগ, জননেত্রী শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগে আমার জীবন থাকতে অন্তত আমার হাত ধরে কোন অনুপ্রবেশকারী দলের ভিতরে ঢুকতে পারেনি আগামিতে ও পারবে না ইনশাল্লাহ । কেননা আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রাজনীতি করি । ছাত্রলীগের কর্মীবান্ধব এই নেতা সারক্ষণ দলের তৃণমূল, আদর্শ আর দলের স্বচ্ছতা নিয়েই দিবারাত স্বপ্নে বিভোর থাকেন । শুধু তাই নয়, ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অক্লান্ত পরিশ্রম করে দলের সুনাম অক্ষুন্ন রেখে দলীয় প্রধানের আস্থাভাজন হয়েছেন । আর সে কারণেই দলের ত্যাগি নেতাকর্মীরা ভালবাসেন তাদের প্রিয় নেতা শফিকুল ইসলাম শফিককে । সূত্রে জানা গেছে, কিছু সুবিধা ভোগী ব্যক্তিরা তার কাছ থেকে ব্যক্তি স্বার্থে অনেক সুবিধা নিতে আসেন । যাদের অনেকই অনুপ্রবেশকারী এবং অযোগ্য মনে করে কোন কাজ বা সুবিধা করে না দেওয়ায় শফিকুল ইসলাম শফিকের বিরুদ্ধে তার অগোচরে নানা কথা বলে থাকেন । শফিকুল ইসলাম শফিকের নিজ এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নেতা ও ব্যক্তি হিসেবে একজন মাটি ও মানুষের নেতা, শান্তির দূত, এলাকার উনয়নের রূপকার,শিক্ষানুরাগী ও একজন নির্ভীক সমাজসেবক, সাধারন মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন । এলাকাবাসীর ভালবাসার অপর নাম তুরাগ থানা ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি, শফিকুল ইসলাম শফিক । তার ভালবাসায় তুরাগের প্রতিটি মহল্লার মানুষ আজ সন্ত্রাসী কর্মকা-ের বিরুদ্ধে কথা বলতে সাহস পায় ।

#

     আরো পড়ুন:

পুরাতন খবরঃ

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১